ইউটিউব থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার সহজ ৩ টি উপায়

ইউটিউব থেকে প্রতিদিন মানুষ হাজার হাজার লাখ লাখ টাকা আয় করছে এটা আপনিও জানেন হয়তো কিন্তু তারা কিভাবে টাকা আয় করে এই বিষয় আপনি জানেন না তাই হয়তো এই পোষ্টে খুজছেন কিভাবে ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা যায়।

ইউটিউবে রোজের কয়েক হাজার ভিডিও আপলোড করা হয় । আর যেসকল ইউটিউবার ভিডিও আপলোড করেন তাদের একটাই উদ্দেশ্য ইউটিউব থেকে কিভাবে আয় করা যায়। তাই আজকে আমরা জানবো ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার সহজ ৩ টি উপায়।

আজকের এই পোষটি পুরো পড়ার পরে ইউটিউব থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায় এই বিষয় আপনাকে অন্য কোথায় সার্চ করতে হবে না। তার আগে আমরা জানবো ইউটিউব কি এবং কিভাবে কাজ করে।

ইউটিউব কি এবং কিভাবে কাজ করে

YouTube একটি ভিডিও শেয়ারিং সোশ্যাল মিডিয়া Platform এখানে বিশ্বের যেকোন জায়গা থেকে যেকেউ তাদের নিজের তৈরি ভিডিও আপলোড করতে পারে । এখানে ভিডিও আপলোড করার জন্য কোন টাকা লাগে না এটা সম্পূর্ণ ফ্রীতে ব্যবহার করা যায়।

ইউটিউব গুগলের অন্যান্য সার্ভিসের মধ্যে একটি তাই সব Smart phone এ আগে থেকেই ইনষ্টল থাকে আর খুব সহজে যেকোন ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায়।

ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করার জন্য আমাদের প্রয়োজন হয় একটি YouTube Account যাকে ইউটিউব চ্যানেল বলে আর ইউটিউবে যারা ভিডিও আপলোড করে থাকে তাদের ইউটিউবার বলা হয়।

YouTube গুগলের মতোই একটি সার্চ ইঞ্জিন। গুগলে কিছু সার্চ করলে সেটা আর্টিকেলের মাধ্যমে দেখায় আর এখানে ভিডিওর মাধ্যমে।  এখানে আপনি সব ধরনের ভিডিও পাবেন।

প্রত্যেক ইউটিউবার তাদের ভিডিও উপরে নিয়ে আসার জন্যে  Video Upload করার পরে ভিডিওর মধ্যে Title, Description, Tag, Video Language ইত্যাদি ব্যবহার করে থাকে।

ইউটিউবে ভিডিও অটো প্রমোট হয়। এখানে আপনি কোন ভিডিও দেখার সময় খেয়াল করবেন সেই ভিডিওর নিচে সেই রিলেটেড অন্য ভিডিও দেখাচ্ছে।

প্রত্যেক ইউটিউবার তাদের ভিডিওর শুরুতে অথবা শেষে বলে থাকেন চ্যানেলে Subscribe করার কথা, তার কারণ এখানে যত বেশি সাবস্ক্রাইবার হবে ততো বেশি Views আশার সম্বাবন থাকে।

ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে ভিডিও আপলোড করুন

  • প্রথমে একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করুণ
  • এর জন্য প্রয়োজন হবে Smart Phone বা Computter আর একটি Gmail আইডি।
  • আপনার চ্যানেলের জন্য একটি সুন্দর আর ছোট নাম রাখুন যাতে সকলে মনে রাখতে পারেন।
  • চ্যানেলের জন্য সুন্দর Logo আর Cover Photo তৈরি করে আপলোড করেদিন।
  • নিজের তৈরি ভিডিও আপলোড করুন।
  • ভিডিওর নাম, ভিডিও বিষয় Tag, কিওয়াড ব্যবহার করুন।
  • ভিডিও আপলোড করার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন।

যখন আপনার ভিডিওতে হাজার সাবস্ক্রাইবার হয়ে যাবে বেশি মানুষ ভিডিও পছন্দ করবে তখন আপনি ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

ইউটিউব চ্যানেল আইডিয়া

ইউটিউবে যেকোনো একটা বিষয় নিয়ে কাজ করা ভালো এতে আপনার চ্যানেল তাড়াতাড়ি রেঙ্ক করবে। আপনি যদি ভিডিও বানাতে পছন্দ করেন আর কোন বিষয় নিয়ে ইউটিউব ভিডিও বানানো যায় চিন্তা করেন তবে নিচে থেকে পছন্দ করতে পারেন এখানে ইউটিউবে সব থেকে বেশি যেসকল বিষয় মানুষ খোঁজে সেগুলো দেওয়া হয়ছে।

  • Technology
  • Cooking
  • Animation
  • Comedy
  • Education
  • Gaming
  • Fitness
  • Sport
  • Song
  • Acting
  • News

ইউটিউব চ্যানেল থেকে টাকা ইনকাম করার সহজ ৩ টি উপায়

ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম করার উপায় অনেক রয়ছে কিন্তু এখানে আমরা সেই ৩ টে বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো যার সাহায্যে সহজেই ইউটিউব থেকে টাকা আয় করা সম্ভব।

  1. google adsence
  2. affiliate marketing
  3. sponsorship

1. Google Adsense

ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার সব থেকে সহজ উপায় Adsense নাম শুনেই বুঝতে পারছেন এটা গুগলের সার্ভিস আর এখান থেকে। ওনেক রকম ভাবে টাকা আয় করা সম্ভব যেমন ব্লগিং করে, এপস তৈরি করে ইউটিউব ভিডিও বানিয়ে।

এমনও বহু ইউটিউবার রয়ছেন যারা ভিডিও বানিয়ে প্রতি মাসে কয়েক লাখ টাকা ইনকাম করেন।

ইউটিউব থেকে ইনকাম করার জন্য চ্যানেল তৈরি করার পরেই মণিটাইজেশনের জন্য আবেদন করতে পারেন কিন্তু বিজ্ঞাপন দেখানর জন্য আপনার ভিডিওতে প্রয়োজন ৪০০০ টাইম ওয়াচ আর হাজার সাবস্ক্রাইবার।

এর পর যখন আপনার ভিডিওতে বিজ্ঞাপন আসবে গুগল আপনার সাথে ইমেলের মাধ্যমে যোগাযোগ করবে। আর যখন ১০ ডলার হয়ে যাবে আপনার ঠিকানা ভেরিফাই করার জন্য একটা চিঠি আসবে।

ঠিকানা ভেরিফাই হয়ে গেলে Bank Details দেওয়ার অপশন পাবেন Google Adsense এ আর ১০০ ডলার হয়ে গেলে ২১ তারিখ থেকে ২৬ তারিখের মধ্যে Adsense এর টাকা আপনার Bank এ চলে আসবে।

2. Affiliate Marketing

Affiliate Marketing এমন এক টাকা আয় করার সহজ উপায় যার দ্বারা একজন ইউটিউবার কোন প্রডাক্ট বা সামগ্রীর বিষয়ে ভিডিও তৈরি করে সেই সামগ্রি বিক্রি করতে সাহায্য করে।

এফিলিয়েট মার্কেটিং করে আয় মানে অন্য কম্পানির কোন প্রডাক্ট এর বিষয় বলে সেই প্রডাক্টটা বিক্রি করা। এর ফলে সেই কম্পানির মালিক আপনাকে সেই প্রডাক্ট এর ওপর ভাল কমিশন দেবে।

এখানে নির্ভর করে কোন প্রডাক্টের ওপর আপনি ভাল Review দিতে পারবেন। কোন জিনিস বিক্রি করা এতটাও সহজ না এর জন্য আপনি যেই জিনিসের বিষয় ভাল জানেন সেই সামগ্রি বিক্রি করার চেষ্টা করতে পারেন।

মনে করলাম কম্পিউটার বিষয় আপনার মোটামুটি ধারনা আছে তাহলে কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর Review দিতে পারেন। মানুষকে বোঝাতে হবে এই ল্যাপটপে এখন অফার চলছে। কি কি আছে তাইতে। উদ্দেশ্য একটাই জিনিষটা বিক্রয় করানো।

এফিলিয়েট মার্কেটিং আপনি ইউটিউব ছাড়াও ফেসবুক পেজ, ফেসবুক গ্রুপ, whatsapp, twitter, telegram যেখানে খুশি করতে পারেন এমন কি মনে করলে একটি ফ্রি ব্লগ সাইট তৈরি করেও Affiliate Marketing করা সম্ভব।

3. Sponsorship

ইউটিউব থেকে Sponsorship এর মাধ্যমেও অনেকে এককালীন ভাল টাকা আয় করতে পারে। Sponsorship হল এমন এক মাধ্যম যেখানে কোন কাজ নাকরেই আপনি আপনার নিজের কাজের জন্য টাকা পেয়ে জেতে পারেন।

এখন আপনি ভাবছেন কোন কম্পানি আপনাকে কেন Sponsorship দিতে চাইবে। সহজ ভাষাই সেই কম্পানি আপনার মাধ্যমে আপনার সাবস্ক্রাইবার বা অন্যান্য বন্ধুদের কাছে তাদের নাম পৌঁছেদিতে চাইছে।

এক্ষেত্রে সেই কম্পানি আপনার ভিডিওর মধ্যে তাদের ওয়েবসাইট লিংক দিতে বলতে পারে অথবা ভিডিও শুরু কিংবা শেষে তাদের বিষয়ে 2-1 কথা বলতে বলবে।

অনেক সময় দেখবেন ইউটিউবে কোন ভিডিও শুরুর প্রথম দিকে কোন গেম বা এপস এর 2-1 লাইন বলে যাতে সেই গেমটি তাদের ভিউয়ার ডাউনলোড করে, এটাও একটা Sponsorship এর জন্য সেই চ্যানেলের মালিক টাকা পেয়ে থাকে।

Sponsorship ইউটিউব ছাড়াও আপনি Instagram এর মাধ্যমে করতে পারেন। সেক্ষেত্রে মিনিমাম 500 ইনস্টাগ্রাম ফলোযার থাকতে হবে এর জন্য ইনস্টাগ্রামে কিভাবে ফলোযার বাড়ানো যায় পোষ্টটি দেখতে পারেন।

কিছুকথাঃ

আজকে আমরা জানলাম ইউটিউব থেকে আয় করার সহজ ৩ টি উপায়। মূলত এই ভাবেই সকলে ইউটিউব থেকে আয় করে

এছাড়াও ইউটিউব থেকে টাকা আয় করার গোপন একটা উপায় হলো যেসকল ইউটিউবার Sponsorship দিয়ে সাথে যোগাযোগ করে অন্য কারোর Sponsorship প্রমোট করা

এতে কোন খাটনি ছড়ায় আপনি নিজের কমিশন রাখতে পারেন। আর পোষ্টটি ভাল লাগলে শেয়ার করতে ভুলবেন না ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

গুগল কিভাবে অনলাইন টাকা আয় করে

গুগল থেকে টাকা আয় করার ৭ টি সহজ পদ্ধতি 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *